""""""''''''''''
              অপ্সরী
- জাহিদ হোসেন রনজু।
------------------------------------®


ক্ষীণকায় তনুখানি
লতা মাধবী
দুধে আলতা রাঙা
দেহ পল্লবী।


ঘন কালো কুন্তল
মেঘের ছায়া
লুকিয়ে সেথা যেন
রাতের মায়া।


ধনুক বক্র ভ্রু
হরিণী নয়ন
কাজল দীঘিতে আঁকা
মায়াবী স্বপন।


টিকালো নাসিকা
বাঁশের বেণু
ঈষৎ টিয়ে ঠোট
মিঠে বাঁকা ধনু।


টুকটুকে লাল ঠোঁট
কমলা কোয়া
লেগে আছে মিষ্টি
হাসির ছোঁয়া।


মুক্তোর মত দাঁত
সদা চিকচিক
হাসিতে চমকায়
বিজলী ঝিলিক।


গোলাপ রঙে রাঙা
পেলব কপোল
হাসলে পড়ে দুটি
মিঠি মিঠি টোল।


প্রেম তিল চিবুক
মরাল গ্রীবা
সুডৌল বক্ষ
অপরূপ শোভা।


সুশোভন মসৃণ
সরু কটিদেশ
ভরাট নিতম্ব
উর্মির বেশ।


চাপা কলা অঙ্গুলি
হাত তুলতুলে
বিদ্যুৎ অনুভূতি
হাতে হাত নিলে।


পাতলা সুকোমল
মসৃণ চরণ
নূপুরের ছন্দে
গজমতি গমন।


মনকাড়া মিষ্টি
চন্দ্র বদন
দর্শনে নিমিষেই
হৃদয়ে বরণ।


সুললিত কন্ঠ
মধুর বচন
শ্রবনে হিয়া মাঝে
জাগে শিহরণ।


বিবেক সম্পন্না
মায়াময় মন,
বুদ্ধির সাথে তার
সদা বিচরণ।


এই সেই অপ্সরী
থেকে স্বপ্নলোকে
চিরকাল নির্জনে
আমাকে যে ডাকে।


(২১.০৮.২০১৬,ঢাকা)