মাথায় কিছু আসছে না ছাই, কাকে নিয়ে কি যে লিখি!
মন প্রাণ সব গেলো কোথায় , গবেট হয়ে গেলাম নাকি ?
তোকে নিয়ে লিখতে গেলে , তুই বলবি আমায় ছাড়ো-
লিখলে পরে আমার কথা , পড়বে নজর কারো কারো।


আকাশ নিয়ে লিখতে গেলাম, করলো আকাশ মুখটা ভারী,
বললো আমায় আজ লিখোনা , লিখলে তোমার সঙ্গে আড়ি,
আকাশ যদি আড়ি করে - ভাসবো আমি কোথায় গিয়ে ?
চাঁদ তারা আর মেঘের সাথে শুকতারা কে সঙ্গে নিয়ে !


নদীর কাছে গিয়ে বলি - আজকে তবে তোমায় লিখি ,
নদী বললো একদম না , দেখছো না আজ গরম টা কি !
এই গরমে আমি এখন আলগা গায়ে দেখছো আছি !
আঁকো যদি আমার শরীর , দেখবে সবাই করবে ছিছিঃ,


তোমায় নিয়ে লিখবো আমি - বললাম তাই অরণ‍্য কে ,
অরণ‍্য কয় - ইচ্ছে করে , লিখতে আমার দৈন‍্যতাকে ?
দিন দিন তো মারছো আমায়, নিচ্ছো কেড়ে আমার দেহ,
তাও তোমাদের মন ভরেনা , আঁকতে চাও এই নগ্নদেহ ?


তারপরতো গেলাম আমি , দিগন্তে যেই সূর্য ডোবে ,
বললাম ভাই সময় দেবে ? তোমার কথা লিখবো তবে ,
দিগন্ত তো রেগে আগুন , বললো , এখন সময় হোলো ?
সূয‍্যি মামা এলো বলে , সকাল থেকে সাঁঝ গড়ালো ।


অবশেষে ভাবলাম ,এই সমাজ নিয়ে লিখি তবে -
যারা খুব ই কষ্টে আছে - তাদের কথা লিখতে হবে,
তাই না দেখে নেতাদাদা , বললো আমায়- তুমি কে হে ?
ওদের কথা বলছি লেখো - সবাই আছে সুস্থ দেহে ,


দূর ছাই আর ভাল্লাগেনা , মন প্রান যে কোথায় আছে !
হঠাৎ করে পড়লো মনে - ওগুলোতো তোর ই কাছে !
সেদিন যে কেড়ে নিলি , মিষ্টি কথায় কেঁদে কেঁদে -
আমায় কিছু লিখতে হবে , একবারটি ফিরিয়ে দে ----প্লিজ ।।