মনোগত দরজাটা খোলাই আছে
অন্তর জমীনটা সাগর ঘেরা এক দ্বীপ
বেলাভূমিতে উজান-ভাটির স্রোত
অবিরত ফুসফাস কানাকানি
ঢেউয়ে ঢেউয়ে উপচে পড়ে, কখনো শুকিয়ে যায়
জোয়ার ভাটার মতো
ভরা পূর্ণিমার আবছায়া আবেশিত রাত
স্বচ্ছ সুনীল আকাশে
উজ্জ্বল তারায় ভরা মিটি মিটি সোনালী হাসি
নির্জন অন্ধকার রাতে গা ছমছম
ঘুটঘুটে আঁধারের শিস
বৃষ্টি মৌসুমে যৌবন উথলে ওঠে
মাতাল হাওয়ায় হাওয়ায় গান ধরে – শোঁ শোঁ
কখনো রুষ্ট হলে, তীরে ধরে ভাঙন
সে ভাঙন মেরামতে কতো কারুকাজ আয়োজন
বুক দুরু দুরু কালবৈশাখীর আলামতে
আমি দরজাটি বন্ধ করতে চাই না ।


ফিরোজ, সিদ্ধেশ্বরী, ১৪/০১/২০১৭