স্বাধীনতা এমন একটা বিদঘুটে শব্দ তার কোন অর্থ খুঁজে পাওয়া গেল না কোথাও।


কিসের স্বাধীনতা? কার স্বাধীনতা?
কোথায় স্বাধীনতা, কেমন সে স্বাধীনতা?


যারা শোষক, প্রবঞ্চক, বলেছে, “তোমরা প্রাণ দাও, তোমাদের স্বাধীনতা দেব,”
স্বাধীনতা কি শুধু সেই সব নেতাদের ঘরে?


যারা  অধীনতার বেড়িতে আবদ্ধ, মুক্তি যাদের বড়ই প্রয়োজন,
যারা স্বপ্ন দেখলো তাদের বংশধরেরা একদিন জাগবে মুক্ত আকাশে,
তারা সব দিল, তাদেরই জন্য একদিন সূর্য হাসলো নতুন দেশে।  


কিন্তু তাদের স্বাধীনতা কোথায়?  
হতাশার হিমঘরে চাদর মুড়ি দিয়ে ঘুম পাড়িয়ে নেতারা তাদেরকে শুধু মুক্তির স্বপ্ন দেখায়!


ওরা স্বাধীন হতে চেয়েছিল, বিশ্বাস করে সংগ্রাম করেছিল, এনেছিল জয় -
তবু পরাজিত ওরা, বন্দী নতুন বন্ধনে
হতাশা অপমানে, দারিদ্রতা, রোগ-শোকে
এখনো বঞ্চিত ওরা, বন্দী লাঞ্ছনার পরাধীন শিকলে।

বঞ্চনার আরেক নাম স্বাধীনতা।
এ কথাই লেখা আছে শুধু মুক্তিকামী নিপীড়িত মানুষের অভিধানে!