একদিন যদি পুরাতন হবে
কেন তবে জন্ম নিলে নতুন মায়ায়,  
একদিন যদি বিদায় নেবে
কেন তবে সাথী হলে মোর ভালবাসায়?


যে পাতা ঝরে যাবে কেন সে এসেছে গাছে  
শুকাবে যে মালা কেন সে বাঁধনে জগৎ বাঁধিছে
চিরসুখের আশে? শেষ হলে গান  
থাকিবে সুরের রেশ আর কতক্ষণ?    
তবু কেন গাইলে সে গান মুগ্ধ করিতে সহস্র প্রাণ,
যদি করিবে খালি কেন তবে পূর্ণ করিলে শূন্য এ জীবন?  


বেলা ওঠে পুবের গগনে, কেন তার রথে  
চলিলে অস্তমুখে পশ্চিমের পানে?
আলোর কথা আছে আঁধারে সাথে,  
দিন কি ঝরে তাই রাতের মাঝে তোমাকে খুঁজিতে নিভৃতে?



কবি, তুমি কেন এখন আর কবিতা লেখ না?

চারিদিকে নিপীড়ন-ব্যথা, অসত্য-বঞ্চণা,
তাই কাতর হয়েছে মন, হারিয়ে গেছে প্রেরণা,  
আঁধারে ঢেকেছে আমার সবিতা  
কার জন্য, কিসের জন্য লিখব কবিতা?


হায় কবি, তুমি যদি করলে অভিমান
কে আর তবে বাঁচাবে এ ভূবন
সবার মনে গরল অতি
চাহে না কেহ সত্য গতি,
ঐ দেখ তোমার প্রদীপে আলোকশিখা এখনো অনির্বান
কেবল তুমিই পার ফুটাতে ফুল, আনতে জীবন!