পৃথিবীর পথে আমি এক পথভোলা দুরন্ত
চলেছি ছুটে সবে নিয়ে একসাথে
কেহ কারো নয়, তবু কেউ নয় অনাত্মীয়
সকলের সাথে মাটির বাঁধনে
রয়ছে গাঁথা আমার জীবনের জয়
তাই সকলে আমি বাসি ভালো আমারই আপন।  


ফুল-পাতা-লতা-গুল্ম মনোরমা বেশ
তাহাদের হাসি করেছে আমায় মুগ্ধ
বন্দরের ভালবাসায়
স্রোতস্বিনী নদী পাল তুলে উজানে কোথায় চলে যায়  
আকাশ হৃদয় মেখে হলুদ ছড়িয়েছে সর্ষে ক্ষেতে --    
সকলে ছুঁয়েছে আমার মন।  


দূর গ্রামের অচেনা কুমারীর চঞ্চল চোখ মায়াবী দৃষ্টি মেলে
বলেছে ডেকে, “চেনোনা? কি হয়েছে তায়?    
এস, ফুলের মালা বদল করি, সব অচেনা চিরচেনা হোক তবে!”      
ঘর-বাড়ী-ছোটক্ষেত, সুন্দর সংসার, জোছনার সোনালী ফসল
সকলেই মাটির বাঁধনে ঘিরে এখন ছড়ায় স্মৃতির স্বপন!