যদি শুধু আলোর অভাব আনতো অন্ধকার
জ্বালিয়ে দিতাম আলো
রঙে রঙে রাঙিয়ে দিতাম সব, তার অভাবে
হ'লে সবই কালো।


এ যে জগৎ জুড়ে রঙের হাটে হাজার রঙের মেলা
এ যে সময় জুড়ে আলোর মাঝে আলো-আঁধার খেলা!
এ যে ধূসর মেঘে ঢেকে যাওয়া বিমল আকাশ-নীল
এ যে সবুজ গাছের শুকনো শাখা, মিলের মাঝে অমিল!
এ যে সাদা রঙের দরজাতে কালো রঙের তালা
এ যে লাল পাপড়িই কীটের ক্ষতে হয় না নিখুঁত মালা!


এ যে মনোহরা দর্শন শেষে ছোঁয়ার সুখে চাওয়া
এ যে ছোঁয়ার সুখের অতৃপ্তিতে অমৃত বোধে খাওয়া!
এ যে অমৃত স্বাদের প্রত্যাশাতে বিষের গলধঃকরণ
এ যে অমরত্বের গন্দম খেয়ে বারে বারেই মরণ!


এ যে অস্তাচলের সোনার আভায় নিশীথ-প্রেমের আশা
এ যে রাতের শেষের প্রখর সূর্যে সকল রঙ্গ-নাশা!
এ যে তৃপ্তি নাশা ঘোর কুয়াশা অনন্ত এক লোভ
এ যে সকল জয়ের মাঝে জাগা সর্বহারার ক্ষোভ!


এ যে আলোয় হরা রঙে ভরা ছোট্ট সে এক ঘরে
যেথায়, সকল আলো সকল রঙই কুয়াশাতেই মরে।