ওগো কবি!
আমায় কি গো তোমার মনে ভাববে
নয়কো কঠিন শব্দে ভরা জব্দ করা কাব্যে?
চতুর শব্দের কুয়াশাতে বিমূর্ততা ভুলে
লিখো না হয় অঙ্গ আমার মূর্তি করে তুলে।


কল্পবধূর গল্পে যদি শুধুই তোমার মতি
সুন্দরী কে বলবে আমায় যখন গর্ভবতী?
ছন্দে যে জন কৃষ্ণকলি, সুন্দরী, অপ্সরা
সে জন যেন পায় গো ঘরে তোমার প্রেমের ধরা।


তোমার ব্যথা রাখলে রেখো, আমায় দিয়ো হাসি
কাব্য ছেড়ে আমায় ভেবো যখন কাছে আসি।
আমার ব্যথা লিখতে হ'লে সইতে হবে ব্যথা
নইলে তোমার ব্যথার কাব্যে কিসের সার্থকতা?


দুঃখ, ব্যথার কাব্য পেতে আমার ঘটাও মরণ
যখন আমি রইবনাকো কে চায় তোমার স্মরণ?
লিখতে হলে লিখো তুমি আমি যখন সদ্য
বুঝব আমি এমন কথায় ছড়া না হয় পদ্য।


ছন্দ লিখে যে আনন্দে শুনছো 'অনবদ্য'
আমার তাতে কি আসে যায় পদ্য কি বা গদ্য?
সরল জীবন সহজ কথায় না যদি হয় কাব্য
সরল আমি কবির সাথে কেমন করে থাকব?


সহজ ভাষায় চিত্ত যে সব নিত্য কথা বলে
কাব্য তোমার মরে নাকি এমন কিছু হলে?