এইতো সেদিন,তোমার বিলাসে
মৃদু আলীঙ্গনে-নিশীথ
জোনাকীর মেলায়
সু-শীতল বাতাসে।


মেঘ,আলোর রেখা
ভালোবাসার আবেশ
জোছনায় ভিজে।
ক্ষত-বিক্ষত প্রকৃতির রূপমোহ
তোমাতে আমি মিশে যাই
কল্পনার রঙে।


তারারা মিটিমিটি আলো জ্বেলে
মেঘের ভেলায় মিলিয়ে।
ভাবনার একমুঠো জোছনায়
ভিজে,সিক্ত প্রাণের উৎসবে।


আজ আমার উঠানে
শীতল পাটির বিছানায়
বসে,আড্ডায় হারাই
তোমার প্রেমে শশী।


চাঁদনী রাতের পূর্ণ জোছনায়
ডিঙিনাও বেয়ে।
বর্ষার জলে আমি ভেসে
সীমাহীন পথের প্রান্তরে।
নীল জোছনায় মলিন
শাপলার ঘ্রাণ মুগ্ধতায়
হারাই।


দিগ্বিদিক ছুটাছুটি
তাকিয়ে আসমান পানে!
আমি দৃষ্টির বাহির
শূন্য প্রেমময়তায়
থমকে দাঁড়িয়ে ?


মিতালী আমার পূর্ণ
চাঁদের মিষ্টি আলো।
সুর-তাল-লয়
গানের আসর-কণ্ঠধ্বনি।


আজ চাঁদনী রাত ..........
পূর্ণ জোছনায় ভিজে
হারাই নীল জোছনার
রূপালী প্রেমে।


শব্দহীন নিশীতে
প্রাণের বন্ধনে-মায়াময়
স্নিগ্ধ,সুরভি জোছনা বিলাসে।