জীবনানন্দ দাশ

জীবনানন্দ দাশ
জন্ম তারিখ ১৭ ফেব্রুয়ারি ১৮৯৯
জন্মস্থান বরিশাল, বাংলাদেশ
মৃত্যু ২২ অক্টোবর ১৯৫৪

জীবনানন্দ দাশ (জন্ম: ১৮ ফেব্রুয়ারি, ১৮৯৯, বরিশাল - মৃত্যু: ২২ অক্টোবর, ১৯৫৪, বঙ্গাব্দ: ৬ ফাল্গুন, ১৩০৫ - ৫ কার্তিক, ১৩৬১) বিংশ শতাব্দীর অন্যতম প্রধান আধুনিক বাংলা কবি। তিনি বাংলা কাব্যে আধুনিকতার পথিকৃতদের মধ্যে অগ্রগণ্য। মৃত্যুর পর থেকে শুরু করে বিংশ শতাব্দীর শেষ ধাপে তিনি জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করেন এবং ১৯৯৯ খ্রিস্টাব্দে যখন তাঁর জন্মশতবার্ষিকী পালিত হচ্ছিল ততদিনে তিনি বাংলা সাহিত্যের জনপ্রিয়তম কবিতে পরিণত হয়েছেন। তিনি প্রধানত কবি হলেও বেশ কিছু প্রবন্ধ-নিবন্ধ রচনা ও প্রকাশ করেছেন। তবে ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দে অকাল মৃত্যুর আগে তিনি নিভৃতে ১৪টি উপন্যাস এবং ১০৮টি ছোটগল্প রচনা গ্রন্থ করেছেন যার একটিও তিনি জীবদ্দশায় প্রকাশ করেননি। তাঁর জীবন কেটেছে চরম দারিদ্রের মধ্যে। বিংশ শতাব্দীর শেষার্ধকাল অনপনেয়ভাবে বাংলা কবিতায় তাঁর প্রভাব মুদ্রিত হয়েছে। রবীন্দ্র-পরবর্তীকালে বাংলা ভাষার প্রধান কবি হিসাবে তিনি সর্বসাধারণ্যে স্বীকৃত। (উৎসঃ উইকিপিডিয়া)


Poetry RSS

এখানে জীবনানন্দ দাশ-এর ৩৪৮টি কবিতা পাবেন।

   
সার্চ করুন
শিরোনাম মন্তব্য
ক্যাম্পে
ক্ষেতে প্রান্তরে
খুঁজে তারে মরো মিছে
গতিবিধি
গভীর এরিয়েলে
গল্পে আমি পড়িয়াছি কাঞ্চী কাশী বিদিশার কথা
গুবরে ফড়িং শুধু উড়ে যায় আজ
গোধূলি সন্ধির নৃত্য
গোলপাতা ছাউনির বুক চুমে
ঘরের ভিতরে দীপ জ্বলে ওঠে সন্ধ্যায়
ঘাটশিলা—ঘটশিলা—
ঘাস
ঘাসের বুকের থেকে
ঘাসের ভিতরে সেই চড়ায়ের শাদা ডিম
ঘুমায়ে পড়িব আমি একদিন
ঘুমায়ে পড়িব আমি একদিন তোমাদের নক্ষত্রের রাতে
ঘোড়া
চক্ষুস্থির
চলছি উধাও
চলে যাব শুকনো পাতা-ছাওয়া ঘাসে
চাঁদিনীতে
চারিদিকে প্রকৃতির
চারিদিকে শান্ত বাতি
চিরদিন শহরেই থাকি
চেতনা-লিখন
ছায়া-প্রিয়া
জনান্তিকে
জয়জয়ন্তী সূর্য
জার্মানীর রাত্রিপথেঃ ১৯৪৫
জীবন
জীবন অথবা মৃত্যু চোখে রবে
জীবন ভালোবেসে
জীবন সঙ্গীত
জীবন-মরণ দুয়ারে আমার
জীবনে অনেক দূর
জুহু
ঝরা ফসলের গান
ডাকিয়া কহিল মোরে রাজার দুলাল
ডাহুকী
তবু তাহা ভুল জানি
তবুও পায়ের চিহ্ন
তার স্থির প্রেমিকের নিকট
তিমির হননের গান
তুমি
তুমি কেন বহু দূরে
তোমরা যেখানে সাধ চলে যাও
তোমরা স্বপ্নের হাতে ধরা দাও
তোমাকে
তোমাকে (অপ্রকাশিত)
তোমায় আমি

পেজটি শেয়ার করুন: