৬৪. কবিতার নাম : গোপন গুহার স্বরলিপি
কবির নাম : রণজিৎ মাইতি


আলোচনা :
রণজিৎ মাইতি রচিত গোপন গুহার স্বরলিপি কবিতাটিতে মানুষের হৃদয়কে মনে করা হয়েছে গুহা l  এই গুহাকোণে সর্বদা যে চিন্তার খেলা চলে, যার ফলে নানা সময়ে মানুষের জীবনে নেমে আসে নানান আঘাত - এই বিষয়টি একটি নির্দিষ্ট ঘটনার সাপেক্ষে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে l
ঐক্য এবং অনৈক্য অস্তিত্বের অংশ l সৃষ্টির শুরুতে মানুষ ছিল একা l দিন যতো এগিয়েছে, মানুষ উপলব্ধি করেছে ঐক্যের প্রয়োজন l জীবনধারণের তাগিদে, সৃষ্টিরক্ষার তাগিদে পাশাপাশি এসেছে মানুষ l সহযোগ অস্তিত্ব রক্ষার অন্যতম উপাদান হয়েছে l এইভাবে সংখ্যা গেছে বেড়ে l দেশে দেশে যুগে যুগে নানা ঘটনা প্রবাহের আবর্তে মানুষের মনে খেলে গেছে কতো বিচিত্র চিন্তার ধারা l এই চিন্তার প্রকাশে কখনো মানুষের সঙ্গে মানুষের সম্পর্কের বাঁধন হয়েছে দৃঢ় l আবার যখন রসদে পড়েছে টান, আপনকে পর করবার বুদ্ধি, তার চিন্তাও করেছে মনন l মানুষের হৃদয়ের গভীরেই ভাঙনের এই বীজ সুপ্ত ছিল l উদ্যেশ্য যখন ভাঙন, তখন মনন নিয়ে এল শব্দ, বাক্য, সুর l ভাঙনের গান শুরু হল l মানুষের মৌলিক বিশ্বাসবোধ, জগতের স্বরূপ, জীবনের লক্ষ্য - এই প্রশ্নের উত্তর সন্ধান করা হয় যেখান থেকে, যার প্রতিটি নির্দেশ যুক্তি তর্কের উর্ধে উঠে মানুষ মেনে চলে, সেই নিজ নিজ ধর্মবিশ্বাসের জায়গা থেকেও ভাঙনের গান অনুমোদন পেল l রাজনীতি, যার মূল উদ্যেশ্যে হলো মানুষের সঙ্গে মানুষের মিলন রচনা করা, বৃহত্তর সংখ্যায় মানুষের কল্যাণ সাধন করা - সেও ক্ষমতার সর্বোচ্চ স্বাদ পাবার মোহে এক জাতির মধ্যে দ্বিজাতি তত্ত্ব সৃষ্টি করে জনজাতিকে বিচ্ছিন্ন করার খেলায় মেতে উঠল l ঈশ্বরের তৈরি ভূখণ্ডে পড়ল মানুষের আঁকা বিভাজন লাইন l ওপরতলার প্রদূষণ জনমনে সঞ্চারিত হল l প্রকাশ্য রাস্তায় কাদা ছোড়াছুড়ি চলল l পরস্পরের প্রতি বিষোদগার l হিংসার প্রকোপ l যা ছিলো সুপ্ত, রাজপথে এলো l পরস্পরের প্রতি অবিশ্বাস, সন্দেহ নানা প্রান্ত থেকে মদত পেয়ে পরিবেশ ভারি করে তুলল এবং এই বাতাবরণে প্রদেশ ভাগ হলো, দেশ ভাগ হলো l এর পরেও অসন্তোষ বেড়েই চলল l যে ভাঙনের বীজ কুঁড়ি হয়ে ছিলো হৃদয়ের গভীরে, তা বিকশিত হলো এবং নগরে উপনগরে পরিবেশ উত্তপ্ত করে তুলল l
এর মাঝে কিছু বড়ো হৃদয়ের মানুষ, যারা বিশ্বনাগরিকতায় বিশ্বাসী এই ভাঙন জোড়া দিতে চান l মিলনের গান গান তাঁরা l কিন্তু হৃদয় একবার ভেঙ্গে গেলে তা সহজে জোড়া হতে চায় না l দুটো লাইন এক রেখাতে আসেই না l সমান্তরাল থেকে  সমান দূরেই থেকে যায় l
মানুষের হৃদয়ের মধ্যে সৃষ্টির শুরু থেকেই মিলন ও বিচ্ছেদ উভয় সুর বর্তমান l এই মৌলিক চিন্তার উৎসভূমি থেকে সে যুগের প্রয়োজনমতো নিজেকে মেলে ধরে l
সুন্দর কবিতার জন্য "গোপন গুহার স্বরলিপি" কবিতার কবি রণজিৎ মাইতি মহাশয়কে অশেষ ধন্যবাদ জানাই l