তোমার কর্ণিয়া আর দেখা যায় না !
তাই, মুশকিল হয় মুখ দেখে চেনা ;
তবুও চিনি, চিনতে হয়-
কারণ হয়তো- আগের ভুল-করে-চেনা ।
একদিন, দেখা হলে জিজ্ঞেস করতাম- ভাল ?
কিবা- কেমন ?  আলাপ গড়াত ;
আজ জানি না, কী যে হ'ল !
মনের মাঝে অনেক কথা হয়ে যায় জড়ো
''আমাকে কেমন-তর ভাবো ?''- ধরো  ।
উঁ-হুঃ  তোমার ওতো সময় কোথা-
যে আমায় ভাববে !
এতো দিন তো মনটাকে করেছিলে আলো ;
সরে পড়েছিলাম-  দুঃখে, অভিমানে
আর ভীষণ রাগ করে ।
তাই স্বাভাবিক, আমাকে লাগবে কালো !
জনান্তিকে বলে রাখি- ঝামেলা পাকাতে
তোমার হাত কী কম ছিল  !
কী জানি কেন, আজকাল আর
চোখের কোণে ছবি ভাসে না
শুধু তোমার চশমায় রোদ হাসে ;
জানো- পড়ে আছি, সংসারের এক কোণে
যেন বন্যা শেষের এক খানা ভেলা
জীবন আমার দীর্ঘ, যেতে চায় না যে বেলা ।


তবে, এখন তুমি চশমা ছাড়ো-
ভাল মানুষ-  কালো চশমায় দেখবে  জগদ্বাসী !
সেদিন, হঠাৎ দেখলাম তোমায় প্রেম-বাজারে
এ-টু-জেড কর্ণারে ;  সাথে আরও এক জন-
যেন পাইনের গায়ে শিশিরকণা ।


মেনে নিচ্ছি- তোমার কোন কসুর ছিল না-
তাইতো,  ঠিকই লাগবে তোমায় চশমা বিনা ।
ভালই হ'ল ; এক জনের হাত ধরে তো
সকল রাখ-ঢাকের উপর গার্গল-জল ফেলে
বেরিয়ে পড়তে পেরেছিলে ;
তবে, দোহাই তোমার !  চশমাটা-
আর পরো না,


আমাকেই  পরতে দাও ।


(রচনাকাল : ২০-০৪- ২০১৭ ।)
© পিসিএস ।




.